শনিবার   ১৬ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
বিমানে আসবে পেঁয়াজ সড়কের কার্পেট তুলে অভিনব প্রতিবাদ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে ভবন নির্মাণের অভিযোগ অর্ধকোটি টাকার গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা! বিয়ানীবাজার আ. লীগের নতুন নেতৃত্ব হবিগঞ্জে বেড়েই চলছে পেঁয়াজের দাম  
৫২

গৃহকর্মীর চাকরী নিয়ে কমলগঞ্জের রুবিনা এখন সৌদির জেলে

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

 


মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের রাজকান্দি গ্রামের সিদ্দেক আলীর মেয়ে রুবিনা বেগম(২৩)। অভাবের সংসারে হাল ধরতে বিয়ের সাত মাস পর পাড়ি জমান সৌদিআরবে। স্থানীয় আদম ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল চলতি বছরের ২৮ এপ্রিল রুবিনাকে সৌদি পাঠান।
 
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সৌদি আরবে গৃহকর্মীর কাজ করার কথা রুবিনার। সেখানে যাওয়ার পাঁচ দিন পর মা বাবার কাছে ফোন দিয়ে ভালো আছে বলে জানায় সে। তখনো তাকে কোন সমস্যায় পড়তে হয়নি। পনের দিন পর রুবিনা আবার ফোন করেন পরিবারের কেছে। তখন বলেন, সেখানে দালাল তাকে গৃহকর্মীর কাজ দেয়নি। বাহিরের বিভিন্ন স্থানে অনৈতিক কাজে যেতে বাধ্য করছে তাকে। সে তাদের কথা মতো যেতে অনিহা প্রকাশ করলে দালাল নানাভাবে শারীরিক নির্যাতন চালাতে থাকে।
 
উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামের হতদরিদ্র ফুল মিয়ার সাথে রুবিনার বিয়ে হয়। দিনমজুরী করে ফুল মিয়া সংসার চালান। সংসারে একটু সুখ শান্তির জন্য রুবিনা বিদেশে পাড়ি জমান। সুখ শান্তির বদলে সেখানে রুবিনার জীবনে নেমে আসে অমানবিক শারীরিক নির্যাতন।
 
রুবিনার বাবা সিদ্দেক আলী ও স্বামী ফুল মিয়া জানান, মোস্তফা কামালের কাছে রুবিনার খবর নিতে বারবার গিয়েছি। মোস্তফা কামাল জানায়, সে সৌদির জেলে আছে। তাকে জেল থেকে মুক্ত করে আনা হবে।

একটি সুত্র জানিয়েছে, শারীরিক নির্যাতনে তার অবস্থা খুবই খারাপ। দেশে তার স্বামী, মা-বাবা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। মেয়েকে ফিরিয়ে আনতে তারা ব্যাকুল। আদম ব্যবসায়ী মোস্তফা কামালের কাছে তারা বারবার ধর্ণা দিলেও কোন কাজে আসছে না। মোস্তফা কামাল রুবিনার স্বামীকে বলেন, ২৫ হাজার টাকা খরচ দিলে রুবিনাকে দেশে ফিরিয়ে আনা যাবে। কিন্তু দিনমজুর এ পরিবার এতো টাকা যোগাড় করতে পারছেনা।

মেয়ের জন্য মা-বাবার আহাজারিতে কমলগঞ্জের আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠছে । এ ব্যাপারে সৌদিআরবে বাংলাদেশী দুতাবাস ও প্রবাসী হৃদয়বানদের সুদৃষ্টি কামনা করছেন তারা।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার