শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
আজ ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন আদালতে বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানোর নির্দেশনা চেয়ে রিট ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক ইতিবাচক : জয়শঙ্কর প্রত্যাবাসনের বিপক্ষে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত ঘুমধুম পয়েন্ট
৫২

কারাবন্দিদের ঈদ শুরু, রাতের মেন্যুতে কোরবানির মাংস

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২ আগস্ট ২০১৯  

ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। সারাবিশ্বে মুসলমান ধর্মাবলম্বীরা ঈদের দিনটি আনন্দের সঙ্গে উদযাপন করেন। কারাবন্দিদের জন্য এ দিনটি অন্যদিনের মতোই। তবে এ বন্দিজীবনে তাদের আনন্দ দিতে প্রতিবছরই নানা আয়োজন করে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার। এবারও ব্যতিক্রম ঘটেনি।

কারা সূত্র জানায়, বন্দিদের ঘরের অনুভূতি দেয়ার জন্য সোমবার সকাল ৭টায় তাদের স্ব স্ব সেলে মুড়ি, পায়েস আর সেমাই পাঠানো হয়। এরপর সকাল ৮টায় কারাগারের ভেতরের ময়দানে ঈদুল আজহার একমাত্র জামাতে অংশ নেন কারাবন্দিরা।


কারাগার মসজিদের নিয়মিত ইমাম ঈদ জামাতের ইমামতি করেন। জামাতের পরপরই তারা একে অন্যের সঙ্গে কোলাকুলি করেন। হাসি ঠাট্টায় মেতে ওঠেন।

বন্দিদের জন্য দুপুরের মেন্যুতে রয়েছে সাদা ভাত, রুই মাছ আর আলুর দম।


এবার সাড়ে ১১ হাজার কারাবন্দির জন্য ৩ হাজার ৩০০ কেজি কোরবানির গরুর মাংসের ব্যবস্থা করেছে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার। রাতের বিশেষ আয়োজনে তারা পাবেন পোলাও, কোরবানির গরুর মাংস (যারা গরুর মাংস খান না তাদের জন্য খাসির মাংস) ডিম, মিষ্টান্ন এবং পান-সুপারি। রাতের খাবারের পর তাদের জন্য মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হওয়ার কথাও রয়েছে।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার জেলার মাহাবুবুল ইসলাম মিলন জাগো নিউজকে জানান, ঈদে কারাবন্দিদের জন্য ইতোমধ্যে ৩ হাজার ৩০০ কেজি মাংসের চাহিদাপত্র দেয়া হয়েছে। দায়িত্বপ্রাপ্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এ অনুযায়ী যে কয়টি গরু প্রয়োজন সেটি কোরবানি দিয়েছে। দুপুরের পর থেকে মাংস আসা শুরু হবে। রাত ৯টা থেকে এসব মাংস দিয়ে কারাবন্দিদের খাবার সরবরাহ শুরু হবে।

কারা সূত্র জানায়, ঈদ উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবারও বন্দিরা কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে পরিবারের আনা খাবার খেতে পারবেন।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর