• রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
বীজ ও সার পেলেন ছাতকের ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকরা দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুর বাজারের প্রাচীনতম পুকুরের পরিচ্ছন্নতা শুরু করোনা : ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সুস্থ ২৬ জন রায়হানের মৃত্যু অতিরিক্ত আঘাতেই

করোনার অ্যান্টিবডি কমলেও উদ্বেগের কিছু নেই

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ৩১ অক্টোবর ২০২০  

সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি কারও শরীর থেকে কমে গেলেও পুনরায় আক্রান্ত হওয়া থেকে সুরক্ষা দিতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, করোনা গবেষণার বড় অংশজুড়ে রয়েছে অ্যান্টিবডি এবং অন্যান্য প্রতিরোধকারী ক্ষমতা। কারণ ভ্যাকসিন পাওয়ার আগ পর্যন্ত একজন কোভিড-১৯ রোগী সুস্থ হওয়ার পর কতদিন পর্যন্ত সুরক্ষিত থাকতে পারেন তা জানা বেশ জরুরি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনবিসি নিউজের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।
 
অ্যান্টিবডি সংক্রান্ত কয়েকটি গবেষণা ফলাফল এই সপ্তাহে প্রকাশিত হওয়ার পর সাংঘর্ষিক ফলাফল নিয়ে দ্বিধা তৈরি হয়। নিউ ইয়র্কের বিজ্ঞানীদের জার্নাল সায়েন্সে প্রকাশ করা এক গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতিরোধ সিস্টেমে তৈরি হওয়া কোভিড-১৯ অ্যান্টিবডি প্রায় পাঁচ মাস পর্যন্ত স্থিতিশীল থাকতে পারে। এর দুই দিন আগে ইংল্যান্ডের অংশগ্রহণকারীদের ওপর পরিচালিত অন্য এক গবেষণায় বলা হয়, সুস্থ হওয়া রোগীদের অ্যান্টিবডির মাত্রা দ্রুত কমছে। পুনরায় পর্যালোচনার অপেক্ষায় থাকা ওই গবেষণায় বলা হয় তিন মাসের ব্যবধানে অ্যান্টিবডির মাত্রা ২৬ শতাংশ পর্যন্ত কমে গেছে।

বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞই একমত পোষণ করেছেন, সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে অ্যান্টিবডির মাত্রা কমে যাওয়া প্রত্যাশিত আর এই কমে যাওয়া সামগ্রিকভাবে উদ্বেগজনক নয়। ইউনিভার্সিটি অব মিসিসিপি মেডিক্যাল সেন্টারের মাইক্রোবায়োলোজি অ্যান্ড ইমিউনোলোজির অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর রিতেশ ট্যান্ডন বলেন, ‘মৌলিক ইমিউনোলোজির (রোগ প্রতিরোধ বিদ্যা) কথা যদি বিবেচনা করা হয় তাহলে দেখা যায় প্রাথমিকভাবে আপনার অ্যান্টিবডির প্রতিক্রিয়া থাকবে আর তারপর সেই প্রতিক্রিয়া হারিয়ে যাবে।’ তিনি বলেন, ‘অ্যান্টিবডি বহুমাত্রিক হয়, তারা একবারই তৈরি হয় না আর রক্তেও থেকে যায় না।’

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচিও ওই মতের সঙ্গে একমত পোষণ করে বলেন, অ্যান্টিবডি কমে গেলেই প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় এটা ভাবার প্রয়োজন নেই। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথে বৃহস্পতিবার এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ‘কেবল অ্যান্টিবডির মাত্রা কমে গেলেই এটা ধরে নেওয়া যায় না যে আপনি সুরক্ষা হারিয়েছেন।’

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার