মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

সর্বশেষ:
মেট্রোরেলের জন্য পুলিশের আলাদা ইউনিট গঠনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সিলেটে ঝাড়ু হাতে ৩ ব্রিটিশ এমপি হাওরাঞ্চলে বর্গা যাচ্ছে না জমি আমি অনুতপ্ত, ক্ষমাপ্রার্থী: রাব্বানী টি-টোয়েন্টি দলে বড় রদবদল প্রবাসীদের এনআইডি পেতে সহায়তা করবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ন্যায্যমূল্যে খোলা বাজারে টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি শুরু সোমবার ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি ফেরাতে চান নতুন নেতারা
১০

ইংল্যান্ডও বাংলাদেশের কাছে হেরেছিল, মনে করালেন সাকিব

খেলা ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিতলে খুব বেশি প্রশংসা হবে না হারলেই সর্বনাশ! অনেক সমালোচনা হবে, অনেক কথা হবে। এই টেস্টের আগে সেটি মনেও করিয়ে দেওয়ার পর সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, এ সমালোচনা-প্রশংসা আমাদের কাছে বিশেষ গুরুত্ব বহন করে না।

সেটি যে শুধু বলার জন্যই বলা, এখন বাংলাদেশ দলকে দেখেই বোঝা যাচ্ছে। মাঠে শরীরী ভাষা ইতিবাচক নয়। আত্মবিশ্বাসও তলানিতে। যেন দলটা ঝড়ে বিধ্বস্ত। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এই পারফরম্যান্স খেলার একটি অংশ বলে পাশ কাটিয়েও যাওয়া যাচ্ছে না। দেশের ক্রিকেটের জন্য অবশ্যই বড় অশনিসংকেত।

সাকিবের কাছে মন্দের ভালো, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটা টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ নয়, ‘ভালো একটাই যে, ম্যাচটা টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের মধ্যে পড়বে না। আমাদের ক্রিকেটের জন্য, আমাদের জন্য হতাশাজনক অবশ্যই যে নতুন একটা দলের কাছে হেরে যাচ্ছি। তবে নতুন দল মানেই যে তারা জিততে পারবে না, এটাও ঠিক না। ইংল্যান্ড দু শ বছর ধরে খেলে, আমরা ১৫-২০ বছর ধরে খেলে তাদের হারিয়েছি। তখন তাদের কেমন লাগার কথা? বিষয়টা এমন না।’

তবে আফগানিস্তানকে কৃতিত্ব দিতে কার্পণ্য নেই বাংলাদেশ অধিনায়কের, ‘অবশ্যই তাদের (আফগানিস্তান) সম্মান দিতে হবে। তারা ভালো খেলেই এমন একটা পজিশনে এসেছে যেখান থেকে তারা জিততে পারে। যেটা বললাম, হয়তো আমরা আরও ভালো কিছু করতে পারতাম। তখন ওদের একটা চ্যালেঞ্জে ফেলতে পারতাম। টেস্ট ক্রিকেটের যে পরীক্ষা সেটা আমরা নিতে পারিনি। এটা অবশ্যই হতাশার।’

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার