শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
খালেদা জিয়া রাজি হলে উন্নত চিকিৎসা: অ্যাটর্নি জেনারেল মিয়ানমারের বক্তব্যকে ‘ফাঁদ’ বলল গাম্বিয়া সরকারের নেতৃত্বের জন্য প্রয়োজন শেখ হাসিনা: পরিকল্পনা মন্ত্রী বড়লেখায় কিশোরী সমাবেশ অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালিত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল
১৩

আল আমিনের ‘কীর্তি’ ফেরালেন ম্যাচ পাতানোয় অভিযুক্ত ভারতীয় পেসার

খেলা ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০১৯  

ভারতীয় ক্রিকেটে অভিমন্যু মিঠুন নামটা অপরিচিত না। আইপিএল দেখা থাকলে ভারতের বাইরের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছেও নামটা পরিচিত। দেশের হয়ে টেস্ট ও ওয়ানডে খেলা এ পেসারের নামে উঠেছে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ। এ নিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ভারতের কেন্দ্রীয় অপরাধবিষয়ক সংস্থা। কাল সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফিতে কর্ণাটক-হরিয়ানা সেমিফাইনালের আগে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ নিয়েই আলোচনায় ছিলেন ৩০ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার। কিন্তু মাঠে নেমেই ৬ বলে ৫ উইকেট নিয়ে পাল্টে দিয়েছেন আলোচনার বিষয়বস্তু।


ভারতের সৈয়দ মুশতাক আলি ট্রফির সেমিফাইনালে গতকাল হরিয়ানার বিপক্ষে কর্ণাটকের হয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়েছেন এই মিঠুন। ইনিংসের শেষ ওভারে ফিরে নিজেকে অবিশ্বাস্য রূপে মেলে ধরে গড়েছেন অনন্য এক কীর্তি। এক ওভারেই নিয়েছেন ৫ উইকেট!

সুরাটে অনুষ্ঠিত শেষ চারের এ ম্যাচে ১৯ ওভার শেষে হরিয়ানার রান ছিল ৩ উইকেটে ১৯২। ২০০ পার করার স্বপ্ন তখন হরিয়ানার। কিন্তু শেষ ওভারে বল করতে আসা মিঠুন তা হতে দেননি। প্রথম তিন বলে হ্যাটট্রিক করে পরের বলেও নেন উইকেট। ছুঁয়ে ফেলেন লাসিথ মালিঙ্গাকে। গত সেপ্টেম্বরে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে টানা চার বলে উইকেট নেওয়ার কীর্তি গড়েছিলেন শ্রীলঙ্কান এ পেসার।

পঞ্চম বলে ১ রান দেন অভিমন্যু। শেষ বলে আবারও ম্যাজিক! তুলে নেন উইকেট। ২০ ওভারের ক্রিকেটের সম্ভবত দ্বিতীয় বোলার হিসেবে এক ওভারে পাঁচ উইকেট নিলেন মিঠুন। কিন্তু এর আগের ওভারেই বেধড়ক মার খেয়ে ১৮ রান দিয়েছিলেন তিনি, অন্য কেউ দূরে থাক, মিঠুন কী নিজেও ভেবেছিলেন পরের ওভারেই এমন কীর্তির দেখা পাবেন? তবে এক ওভারে ৫ উইকেট নিয়ে অভিমন্যু মিঠুন বসলেন বাংলাদেশের পেসার আল আমিন হোসেনের পাশে।

আল আমিনেরও একইরকম অবিশ্বাস্য কীর্তি আছে ঘরোয়া ক্রিকেটে। ২০১৩ সালে বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি কাপে ইউসিবি-বিসিবি একাদশের হয়ে আল আমিন এক ওভারে আবাহনীর ৫ উইকেট নিয়েছিলেন। সেবারও কাণ্ডটা ঘটেছিল শেষ ওভারে। বিধ্বংসী আল আমিনের শিকার হয়েছিলেন মেহেদি মারুফ, নাজমুল হোসেন মিলন, সোহরাওয়ার্দি শুভ, নাঈম ইসলাম জুনিয়র ও নাবিল সামাদ। ৫ উইকেটে ১৪৩ রান নিয়ে শেষ ওভার শুরু করা আবাহনীর স্কোরবোর্ডে শেষ ওভারে আর এক রানও যোগ হয়নি, উল্টো বাকি ৫ উইকেটও পড়ে যায়। পরে ম্যাচটাও জিতে নেয় আল আমিনের ইউসিবি-বিসিবি একাদশ।

এই আল আমিনের কীর্তিতেই ভাগ বসালেন অভিমন্যু মিঠুন। গত কয়দিন ধরে এই ভারতীয় পেসারের সঙ্গে যা ঘটছে, তাতে এই কীর্তি অনেকটা দমবন্ধ করা পরিস্থিতির মধ্যে বিশুদ্ধ বাতাসের মতোই। ভারতের টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোর মধ্যে কর্ণাটক প্রিমিয়ার লিগ (কেপিএল) অন্যতম। তবে বিশ্বের অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগগুলোর মতো এই লিগ নিয়েও ম্যাচ পাতানোর প্রশ্ন উঠেছে। এ কারণে গ্রেপ্তারও হয়েছেন কয়েকজন।

এবার কেপিএলে ম্যাচ পাতানোর ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য ডাকা হয়েছে এই মিঠুনকে। ম্যাচ পাতানো নিয়েই অভিমন্যু মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ভারতের কেন্দ্রীয় অপরাধবিষয়ক সংস্থা। এখনো সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নিশ্চিত হয়ে জানানো হয়নি, মিঠুন আদৌ ম্যাচ পাতিয়েছেন কি না। আপাতত কেপিএলে ম্যাচ পাতানো নিয়ে মিঠুন কোনো কিছু জানেন কি না, সেটা নিয়েই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের যুগ্ম কমিশনার সন্দ্বীপ পাতিল।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর